১৭ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :

চৌদ্দগ্রামে প্রস্তাবকারী-সমর্থনকারীর বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগে মহিলা মেম্বার প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টার: কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের মুন্সীরহাট ইউনিয়নের সংরক্ষিত আসনের মহিলা মেম্বার পদপ্রার্থী রেহানা বেগম তার মনোনয়নপত্রের প্রস্তাবকারী একই ইউনিয়নের ছাতিয়ানী গ্রামের নজির আহম্মদ মোল্লার ছেলে হেলাল মোল্লা ও সমর্থনকারী একই গ্রামের দুদু মিয়া পন্ডিতের ছেলে নুরুল ইসলাম পন্ডিত এর বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। শুক্রবার বিকেলে চৌদ্দগ্রাম প্রেসক্লাবে এই সংবাদ সম্মেলেন অনুষ্ঠিত হয়। রেহানা উপজেলা মুন্সীরহাট ইউনিয়নের ছাতিয়ানী গ্রামের আব্দুল মোতালেবের স্ত্রী এবং মুন্সীরহাট ইউনিয়ন মহিলা আ’লীগের ৩নং ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করে বলেন, আগামী ২৬ ডিসেম্বর অনষ্ঠিতব্য আসন্ন মুন্সীরহাট ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ১, ২, ৩নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত মহিলা আসনের ১ জন সদস্য পদপ্রার্থী। নির্বাচনে অংশ গ্রহণের উদ্দেশ্যে গত ১৯ নভেম্বর উপজেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার নিকট হইতে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলাম। পরবর্তীতে ২৫ নভেম্বর আমি আমার মনোনয়নপত্রের প্রস্তাবকারী হেলাল মোল্লা ও সমর্থনকারী নুরুল ইসলাম পন্ডিতসহ উপজেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দিতে গেলে তারা আমার সরলতার সুযোগ নিয়ে জমা দেয়ার কথা বলে সু-কৌশলে আমার কাছ থেকে মনোনয়নপত্রটি নিয়ে যায়। পরে তারা মনোয়নপত্রটি জমা না দিয়ে আমার অগোচওে তা নষ্ট করে ফেলে। তারা আমাকে জানায়, আমার পক্ষ থেকে তারা মনোনয়নপত্রটি রিটার্নিং কর্মকর্তার নিকট জমা দিয়েছে। পরবর্তীতে ২৯ নভেম্বর মনোনয়নপত্র যাচাই-বাচাইয়ের দিন উপজেলা নির্বাচন কার্যালয়ে গিয়ে জানতে পারি আমার নামে সংরক্ষিত মহিলা আসনে কোন মনোনয়নপত্র জমা দেয়া হয়নি। আমার মনোনয়নপত্রের প্রস্তাবকারী ও সমর্থনকারী একটি বিশেষ মহলের সাথে গোপন আঁতাতের মাধ্যমে আমার অগোচরে প্রতারণা আশ্রয় নিয়ে মনোনয়নপত্রটি জমা দেয়নি। তারা আমার ক্ষতি সাধনের উদ্দেশ্যে আমার নামে আরেকটি ভুয়া সাধারণ সদস্য (পুরুষ ওয়ার্ডের) মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে স্বাক্ষর জালিয়াতির মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তার নিকট জমা প্রদান করে। পরে আমি বিষয়টি নিয়ে মনোনয়নপত্র প্রস্তাবকারী হেলাল মোল্লা ও সমর্থনকারী নুরুল ইসলামের নিকট জানতে চাইলে তারা আমাকে কোনো সদুত্তর দিতে পারেনি। তারা ক্ষতি সাধনসহ আমার সামাজিক মান-সম্মান নষ্ট করার হুমকি প্রদান করে আসছে। আমি সাংবাদিকদের মাধ্যমে বিষয়টির সুষ্ঠু সমাধানে সংশ্লিষ্ট নির্বাচন কর্মকর্তাসহ স্থানীয় প্রশাসনের সদয় হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত নুরুল ইসলাম পন্ডিত বলেন, আমি সমর্থনকারী হিসেবে শুধু মনোনয়নপত্রে স্বাক্ষর করেছি। জমা দেয়ার বিষয়ে আমি কিছু জানিনা।

এ ব্যাপারে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মো: ফারুক হোসেন বলেন, ‘মুন্সীরহাট ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডে রেহানা বেগম নামে এক নারী প্রার্থীর পক্ষে সাধারণ সদস্য পদে একটি মনোনয়নপত্র জমা পড়েছে। যাচাই-বাচাই শেষে মনোনয়নপত্রটি বৈধ বলে ঘোষনা করা হয়েছে। সংরক্ষিত মহিলা আসনে উনার পক্ষে কোনো মনোনয়নপত্র জমা দেয়া হয়নি’।

সবুজ বাংলা নিউজ পরিবার

জিয়াউর রহমান হায়দার

প্রকাশক ও সম্পাদক
মোবাইল: ০১৮১৭ ৪৫০০৯৬

মোঃ নাজমুল হক

নির্বাহী সম্পাদক
মোবাইল: ০১৭১০ ৯১৩৩৬৬

রানা মিয়া

সহযোগী সম্পাদক
মোবাইল: ০১৮৮১ ১৪১৮৬৬