৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :

লকডাউন বাস্তবায়নে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন ও আইনশৃংখলা বাহিনী, সচেতনতা বৃদ্ধিতে প্রচারণা অব্যাহত

মুহা. ফখরুদ্দীন ইমন: করোনা মহামারীর তৃতীয় ঢেউ প্রতিরোধে সরকার নির্দেশিত সর্বাত্মক লকডাউন বাস্তবায়নে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে কঠোর অবস্থানে রয়েছে উপজেলা প্রশাসন ও আইনশৃংখলা বাহিনী। সচেতনতা বৃদ্ধিতে মাইকিং ও মাস্ক বিতরণ সহ প্রচার-প্রচারণা অব্যাহত রেখেছে উপজেলা প্রশাসন।

গত ১ জুলাই থেকে ঘোষিত লকডাউনে মানুষকে ঘরমুখি করে রাখতে প্রাণপণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে উপজেলা প্রশাসন, সেনাবাহিনী, বিজিবি, র‌্যাব ও পুলিশ। প্রতিদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এসএম মনজুরুল হক এবং সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আল আমিন সরকারের নেতৃত্বে পৃথক দুটি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়ে আসছে। এছাড়া সেনাবাহিনী, র‌্যাব, থানা ও হাইওয়ে পুলিশ পৃথক পৃথক ভাবে তাদের অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে এবং হ্যান্ডমাইকে সরকারের নির্দেশনা মেনে চলার অনুরোধ জানিয়ে জনসচেতনতার সৃষ্টি করছেন। ঝড়-বৃষ্টি ও প্রখর রোদের মধ্যে দাঁড়িয়ে মানুষকে নিরাপদ রাখতে প্রশাসন ও আইনশৃংখলা বাহিনী নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। অপরদিকে বিভিন্ন ছলচাতুরি দেখিয়ে একশ্রেণির মানুষ বিনা কারণে সড়ক-মহাসড়কে লকডাউন দেখতে বেরিয়ে পড়ছে। আবার অনেক ব্যবসায়ী নির্দেশনার বাইরের ও নিদিষ্ট সময়ের পরও দোকান খুলে বসে থাকছেন। তাদের এ হেয়ালীপনার কারণেই আজকে চৌদ্দগ্রামে আক্রান্তের হার বাড়ছে বলে মনে করছেন সচেতন মহল। স্বাস্থ্যবিধি ও সরকারের নির্দেশনা মেনে চললে এবং জরুরী প্রয়োজনে মাস্ক পড়ে ঘর থেকে বের হলে আল্লাহর রহমতে করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ করা সম্ভব বলে মনে করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম মনজুরুল হক।

তিনি চৌদ্দগ্রামবাসীকে ঘরে থাকার আহবান জানিয়ে বলেন, আপনারা ঘরে থাকুন, পরিবার পরিজন নিয়ে নিরাপদ থাকুন। খাবারের প্রয়োজন হলে ৩৩৩ নম্বরে কল করুন। বিনা কারণে ঘুরাঘুরি করে নিজে ও পরিবারের সদস্যদের জীবনকে ঝুঁকিতে না ফেলার অনুরোধ করেন তিনি। তারপরও সরকারের নির্দেশনা অমান্য করে বিনা কারণে কেউ ঘর থেকে বের হলে আমরা কঠোর হতে বাধ্য হবো বলে তিনি জানান।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) আল আমিন সরকার বলেন, আপনারা ঘরে থাকুন, আপনাদের নিরাপদ রাখতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। সরকারের নির্দেশনা মেনে চলে করোনা প্রতিরোধে সক্রিয় ভুমিকা রাখুন। অযথা ঘুরাঘুরি করে সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়ানো থেকে বিরত থাকুন। এর ব্যতিক্রম হলে আমরা আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে পিছপা হবো না।

চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শুভ রঞ্জন চাকমা বলেন, সরকার ঘোষিত লকডাউন বাস্তবায়নে উপজেলার প্রশাসনের পাশাপাশি চৌদ্দগ্রাম থানা পুলিশ সবসময় সোচ্চার ভূমিকা পালন করে আসছে। মহাসড়ক সহ উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ স্থান সমূহে থানা পুলিশের টহল অব্যাহত রয়েছে। এসময় তিনি স্বাস্থ্যবিধি মেনে সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে সচেতনভাবে চলাফেরা করার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান।

সবুজ বাংলা নিউজ পরিবার

জিয়াউর রহমান হায়দার

প্রকাশক ও সম্পাদক
মোবাইল: ০১৮১৭ ৪৫০০৯৬

মোঃ নাজমুল হক

নির্বাহী সম্পাদক
মোবাইল: ০১৭১০ ৯১৩৩৬৬

রানা মিয়া

সহযোগী সম্পাদক
মোবাইল: ০১৮৮১ ১৪১৮৬৬