২৮শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :

চৌদ্দগ্রামে সামাজিক বিরোধের জেরে শিক্ষকের উপর হামলা

স্টাফ রিপোর্টার: কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে সামাজিক বিরোধের জেরে মো. আমির হোসেন (৪০) নামে এক শিক্ষকের উপর হামলার খবর পাওয়া গেছে। তিনি উপজেলার বাতিসা ইউনিয়নের নানকরা দক্ষিণ পাড়ার মৃত মো. আব্দুল মাবুুদের ছেলে এবং একই ইউনিয়নের নানকরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। এ ঘটনায় ভুক্তভোগি ওই শিক্ষক নিজে বাদী হয়ে চার জনের নাম উল্লেখ করে চৌদ্দগ্রাম থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। আসামীরা হলো: উপজেলার বাতিসা ইউনিয়নের নানকরা উত্তর পাড়ার মো. নজির আহমদের ছেলে কাজী মিজানুর রহমান সোহেল (৩৮), কাজী হাবিবুর রহমান জুয়েল (৩৬), কাজী রাসেল (৩২) এবং একই এলাকার মৃত আব্দুল মালেকের ছেলে মো. শাকিল (২৬)।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, সামাজিক বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে কিছুদিন যাবৎ আসামীদের সাথে শিক্ষক আমিরের মতানৈক্য ও মতবিরোধ চলে আসছিল। এ কারণে আসামীরা আমির হোসেনকে বিভিন্ন সময় লোকসমাগমে দেখে নেয়ার হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছিলো। উক্ত মত বিরোধের জের ধরে মামলায় উল্লেখিত আসামীরা শনিবার (১০ অক্টোবর) সকাল আনুমানিক নয়টার দিকে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে দলবদ্ধ হয়ে শিক্ষক আমির হোসেনের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় সোহেল, জুয়েল, রাসেল ও শাকিল সহ অজ্ঞাতনামা আরো কয়েকজন ব্যক্তি নানকরা রাস্তার মাথায় আমির হোসেনকে তার মালিকীয় সুমাইয়া হোমিও কেয়ারে প্রবেশ করে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ ও কলার চেপে ধরে কিল-খুশি মেরে নীলাফুলা ও বেদনাদায়ক জখম করে এবং গলা চেপে ধরে শ্বাসরোধে হত্যার চেষ্টা করে। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তিনি চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণ করেন। প্রকাশ্য দিবালোকে শিক্ষকের উপর হামলার ঘটনায় এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনার পর চৌদ্দগ্রাম থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এবিষয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস আই আব্দুল মজিদ বলেন, “শিক্ষকের উপর হামলার ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করার প্রেক্ষিতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। প্রয়োজনীয় প্রদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে”।

এদিকে শিক্ষক আমির হোসেনের উপর ন্যাক্কারজনক এ হামলার ঘটনায় বাংলাদেশ প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক সমিতির পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি শামসুদ্দীন মাসুদ, কুমিল্লা জেলা সভাপতি আব্দুল হালিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান, প্রচার সম্পাদক নঈমুল হক ও চৌদ্দগ্রাম উপজেলা সভাপতি মো. মুস্তাফিজুর রহমান সহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ। তারা এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে অবিলম্বে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

সবুজ বাংলা নিউজ পরিবার

জিয়াউর রহমান হায়দার

প্রকাশক ও সম্পাদক
মোবাইল: ০১৮১৭ ৪৫০০৯৬

মোঃ নাজমুল হক

নির্বাহী সম্পাদক
মোবাইল: ০১৭১০ ৯১৩৩৬৬

রানা মিয়া

সহযোগী সম্পাদক
মোবাইল: ০১৮৮১ ১৪১৮৬৬