৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :

চৌদ্দগ্রামে রেললাইনের পাশে স্বামীর লাশ ফেলে পালিয়েছে স্ত্রী, গ্রেফতার ৩

স্টাফ রিপোর্টার: কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে স্বামীর লাশ রেললাইনের পাশে ফেলে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্ত্রীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত সুমি আক্তারসহ (২৪) তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতার হওয়া বাকি দু’জন হলেন- চট্টগ্রামের হাবিবুর রহমান ফারুক (২২) ও উপজেলার আলকরা ইউনিয়নের চাপাচৌ গ্রামের সিএনজিচালক রুহুল আমিন (৬০)।

সূত্র জানায়, গত ২৪ ডিসেম্বর উপজেলার আলকরা-কেন্দুয়া রাস্তার মাথায় রেললাইনের পাশ থেকে ২৫ বছর বয়সী এক অজ্ঞাতনামা যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ওইদিন রাতে চৌদ্দগ্রাম এসআই নুরুজ্জামান হাওলাদার বাদী হয়ে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনার তদন্তের দায়িত্ব পান একই থানার এসআই মনির হোসেন।

এসআই মনির হোসেন মঙ্গলবার সাংবাদিকদের জানান, মামলার তদন্তের দায়িত্ব পাওয়ার পর তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে নিহত যুবকের পরিচয় উদ্ধার করা হয়। তার নাম শায়েস্তা খান। তিনি চট্টগ্রামের জোরারগঞ্জ উপজেলার মেহেদীনগর গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে।

পরবর্তীতে জানা যায়, নিহত যুবকের শ্বশুর বাড়ি চৌদ্দগ্রাম উপজেলার আলকরা ইউনিয়নের বাকগ্রামে। তিনি ওই গ্রামের জয়নাল আবেদীনের মেয়ে সুমি আক্তারকে বিয়ে করেন। মৃত্যুর আগের দিন শায়েস্তা খান শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে আসে। কিন্তু তার স্ত্রী সুমি আক্তার গুনবতী ইউনিয়নের চাপাচৌ গ্রামের শহীদুল্লাহর বাড়িতে ভাড়া থাকতো। সুমি আক্তার একজন নৃত্যশিল্পী।

এসআই মনির হোসেন আরও জানান, শায়েস্তা খানের মৃত্যুর আগের দিন স্ত্রী সুমি ভাড়া বাসায় ওঠে। আশে-পাশের লোকজন ওই বাড়ির মালিক জানিয়েছেন, ২৩ ডিসেম্বর গভীর রাতে সুমি আক্তার বাড়ির আশেপাশের লোকজনকে ডেকে বলেন তার স্বামী শায়েস্তা খান আত্মহত্যা করেছে। এসময় লোকজন শায়েস্তা খানের ঝুলন্ত লাশ সুমির ঘরে দেখতে পায়। পরবর্তীতে লাশ থানায় অথবা তার সুমির বাবার বাড়িতে নিয়ে যেতে বলেন বাড়ির মালিক শহিদুল্লাহ। কিন্তু সুমি লাশটি থানায় বা তার বাবার বাড়িতে না নিয়ে গ্রেফতারদের সহযোগিতায় লাশটি রেললাইনের পাশে রেখে চলে যায়। ৫ জানুয়ারি আসামিদের আদালতে পাঠানো হয়। এ ঘটনার সাথে জড়িত অন্যদের গ্রেফতারে চেষ্টা অব্যাহত আছে। গ্রেফতার তিন আসামির রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে।

চৌদ্দগ্রাম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শুভ রঞ্জন চাকমা বলেন, শায়েস্তা খানের মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে চার জন সাক্ষী আদালতের তাদের সাক্ষ্য দিয়েছেন। আমরা এ ঘটনার প্রকৃত রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে প্রাথমিকভাবে তিন জনকে গ্রেফতার শেষে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

সবুজ বাংলা নিউজ পরিবার

জিয়াউর রহমান হায়দার

প্রকাশক ও সম্পাদক
মোবাইল: ০১৮১৭ ৪৫০০৯৬

মোঃ নাজমুল হক

নির্বাহী সম্পাদক
মোবাইল: ০১৭১০ ৯১৩৩৬৬

রানা মিয়া

সহযোগী সম্পাদক
মোবাইল: ০১৮৮১ ১৪১৮৬৬