২৬শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :

নয়া বছর নয়া উদ্যমে

৩১ ডিসেম্বর বছরের শেষ দিন, রাত ১২টার পর পুরনোকে বিদায় জানিয়ে শুরু হয় নতুন বছরের, যা ইংরেজি নববর্ষ নামে পরিচিত। পুরোবিশ্বের মত বাংলাদেশেও পালন করা হয় ইংরেজি নববর্ষ। থার্টি ফার্স্ট নাইটকে ঘিরে থাকে অনেক উদ্যোগ উদ্দীপনা, থাকে অনেক পরিকল্পনা।

থার্টি ফার্স্ট নাইট ও পহেলা জানুয়ারি পালনের ইতিহাস অনুসন্ধান করলে দেখা যায়, এর ইতিহাস অনেক পুরনো। খ্রিষ্টপূর্ব ৪৬ সালে ইংরেজি নববর্ষ পালনের সূচনা করেন ব্যবিলনের সম্রাট জুলিয়াস সিজার। ১৫৮২ সালে প্রবর্তন হয় পোপগ্রেগরীর নামানুসারে গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার। এর পর থেকেই মূলত ইউরোপসহ বিভিন্ন দেশে পহেলা জানুয়ারি ইংরেজি নববর্ষ পালন করা শুরু হয়।

কিন্তু বর্তমানে থার্টি ফার্স্ট নাইটের নামে আমাদের দেশে, অভিজাত হোটেলে ডিজে পার্টির আয়োজন, থার্টি ফার্স্ট নাইট পালনের নামে রাতভর বেহায়পনা, নগ্নতার প্রদর্শন, ড্রিঙ্কস এর নামে মদ্যপান করে মাতলামি, অভিজাত হোটেলগুলোতে ডিজে পার্টির নামে নিজের চরিত্র বিলিয়ে দেওয়া, ডিস্কো উলঙ্গ নৃত্য, তরুণ-তরুণীদের একসাথে রাতভর উল্লাস, লাইভ নগ্নড্যান্স, বিদেশী সঙ্গীতানুষ্ঠান। এতে ইংরেজি নববর্ষকে কেন্দ্র করে ধ্বংস হচ্ছে আমাদের যুব সমাজ, ধ্বংস হচ্ছে আমাদের সংস্কৃতি।

কিন্তু এত কিছু করার পর, আমরা কি নিজেকে নিয়ে একটু ভেবেছি? জীবন থেকে আবারও একটি বছর চলে গেছে, অনেক কিছু হারিয়ে গেছে! এবং মৃত্যুর কাছাকাছি পৌঁছে যাচ্ছি আমারা। আহারে জীবন! একদিনের জন্যই কি আমাদের আনন্দ? তাই আজকে দিনে হিসেব করি নিজেকে নিয়ে, হিসেব করি নিজের সফলতা ও ব্যর্থতার। গত বছর কে কি করেছি,নিজের জন্য পরিবারের জন্য, সমাজ ও দেশের জন্য। এবং কি হারিয়েছি কি পেয়েছি?

তাই আসুন আজকে থেকে প্রতিজ্ঞা করি? নতুন বছরকে নতুনভাবে শুরু করি। নতুন বছরে শুরু করি নতুন ভাবনা। অশ্লীলতা দিয়ে নয়, ভালো কিছু দিয়ে শুরু করি। শুরু হোক নতুন উদ্যোমে আমাদের নতুনভাবে যাত্রা, ভুলে যাই হিংসা, বিদ্বেষ, অহংকার। সবাই হাতে হাত রেখে এগিয়ে যাই। নতুন বছরে আমরা চাই মানসম্মত আধুনিক শিক্ষা। চাই বেকারদের কর্মসংস্থান। সবচেয়ে বেশি চাই নাগরিক অধিকার। মানুষ হিসেবে মর্যাদা নিয়ে বাঁচার অধিকার। আমাদের বাঙালি জাতির নিজস্ব সংস্কৃতির উপর অন্যসংস্কৃতির প্রভাব বিস্তার যেন না করতে পারে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। সবার জীবন আনন্দের হউক। শুভ কামনা নয়া বছরের।

লেখক
গোলাম মোস্তফা রবি
০১৮১৩-৩০৩৩৫৪
মেইল: gmr3354@gmail.com

পাঠক কলামের কোন লেখার বিষয়ে পত্রিকা কর্তৃপক্ষ কোন দায় নিবে না। লেখক তার নিজের লেখার জন্য সম্পূর্ণ দায়ভার গ্রহণ করবেন।

সবুজ বাংলা নিউজ পরিবার

জিয়াউর রহমান হায়দার

প্রকাশক ও সম্পাদক
মোবাইল: ০১৮১৭ ৪৫০০৯৬

মোঃ নাজমুল হক

নির্বাহী সম্পাদক
মোবাইল: ০১৭১০ ৯১৩৩৬৬

রানা মিয়া

সহযোগী সম্পাদক
মোবাইল: ০১৮৮১ ১৪১৮৬৬